মানুষের পাশে থেকে জীবন চলে গেলেও আপত্তি নেই শাহে আলম এমপি

  • আপডেট টাইম : মে ১৫ ২০২০, ২৩:৪৬
  • 85 বার পঠিত
মানুষের পাশে থেকে জীবন চলে গেলেও আপত্তি নেই শাহে আলম এমপি

মো. সুজন মোল্লা, বানারীপাড়া।। কোভিড-১৯ ছোঁয়াছে একটি ভাইরাস। বাংলাদেশে ছড়াতে পারে এই মরণঘাতী রোগ এমন ঘোষনায় প্রাথমিকভাবে মানুষ যখন চরম আতঙ্কিত। যখন মানুষকে ঘরে থাকতে হবে, খাদ্য সহায়তা দিবে সরকার এমন ঘোষনা এলো। মানুষ তাদের কর্ম ছেড়ে হয়ে
পড়লেন ঘর বন্ধি। ঠিক সেই সময় থেকে বরিশাল-২ উজিরপুর-বানারীপাড়া উপজেলা নিয়ে গঠিত সংসদীয় আসনের সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয়কমিটির সাবেক সভাপতি মো. শাহে আলম ছুটে এলেন নিজ নির্বাচনী এলাকায়। আর মরণঘাতী ভাইরাসের ঝুঁকি নিয়ে এখন পর্যন্ত নিজ এলাকায় থেকে ছুটে চললেন এক গ্রাম থেকে অন্য গ্রামে। সাথে রাখছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার খাদ্য সহায়তা (উপহার সামগ্রী)। অসহায় পরিবারের শিশুদের মাঝে বিতরণ করেছেন

সাধারণ মানুষের খোদার পরে শেষ ভরসা সমূদ্র বিজয়ী প্রধানমন্ত্রী মানবতার মা দেশরতœ শেখ হাসিনার শিশু উপহার। করোনা কালের মধ্যেই শুরু হয় মুসলিম ধর্মের অন্যতম ইবাদতের মাস রমজান। অবিরাম ছুটে চললেন ইফতার সামগ্রী নিয়ে।

তার নির্বাচনী এলাকার সকল মসজিদের ইমাম ও মুয়াজ্জিনদের মাঝে বিতরণ করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেওয়া ইফতার সামগ্রী। দিলেন অসহায় সকল পরিবারের মাঝেও। নিজ অচ্ছিক তহবিলের অর্থ দিয়েছেন হত দরিদ্র পরিবারে। নিজ
অর্থ দিয়েও সহায়তা করেছেন অসহায় পরিবারের মাঝে। ত্যাগী রাজনীতির ধারক ও বাহক এই সংসদ সদস্য মানুষের পাশে দাঁড়াতে এদেশের স্বাধীনতা অর্জনকারী রাজনৈতিকদল আওয়ামী লীগের তার এলাকার  প্রতিটি কমিটির নেতৃবৃন্দ ও স্থানীয়
নেতা কর্মীদের অসহায় হয়ে পড়া পরিবারের খোঁজ রাখতেও নির্দেশনা দিয়েছেন।

দফায় দফায় মিটিং করেছেন প্রশাসনের সাথে। খোঁজ রেখেছেন নিজ দলের অসহায় কর্মী ও সমর্থকদেরও। তবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার সামগ্রী বিতরণের সময় তার কাছে কে কোন রাজনৈতিক দলের তার কোন মাপকাঠি ছিলোনা।
সমানে ছুটে চলেছেন গ্রাম থেমে গ্রামে। সহায়তা করেছেন প্রতিটি কর্মহীন পরিবারকে। এই মরণঘাতী কোভিড-১৯’র মধ্যে ছুটে চলার সময় তাকে অনেকেই সুরক্ষায় থেকে (পিপিই ব্যবহার করে) কার্যক্রম পরিচালনা করতে বলেছিলেন। তবে তিনি সেটি না করে রাজনীতির মূল আদর্শ বাস্তবায়ন করেছেন এই জনপদে। কোন প্রকার সুরক্ষা ছাড়াই চলে গেছেন এক দুয়ার থেকে অন্য দুয়ারে। এই ছুটে চলার মধ্যে তার একটাই কথা ছিলো রাজনীতি করতে এসেছি সাধারণ মানুষের মুখে হাসি ফুটাতে। কর্মহীন অসহায় পরিবারের পাশে দাঁড়াতে গিয়ে যদি তার মরণও হয় তাতে কোন আপত্তি নেই। কেননা বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের রাজনীতির আদর্শ’ই হলো মা মাটি মানুষের সাথে মিলেমিশে একাকার হয়ে সকল প্রকার দূর্যোগকে মোকাবেলা করা।

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর

হালিমা খাতুন স্কুলের ভর্তি বিজ্ঞপ্তি, বরিশাল







ফেসবুক কর্নার

শিরোনাম
কুয়াকাটায় চার আবাসিক হোটেল মালিককে দণ্ডটেস্ট ও ওয়ানডে খেলতে বাংলাদেশে আসবে ভারতনৌযান চলাচলের অনুমতির দাবিতে বরিশালে বিক্ষোসাংবাদিক রোজিনার ওপর হামলা ও মামলার প্রতিবাসাংবাদিক রোজিনার রিমান্ড নাকচ, কারাগারে পাঠাস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সংবাদ সম্মেলন বয়কট সরোজিনাকে হেনস্তার ঘটনায় মামলা করবেন স্বামীবরিশালে ‘ফেসবুক লাইভে’ গিয়ে যুবকের আত্মহত্যকলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের টিকা দবরিশালে বাসদের চাঁদাবাজি মামলার গ্রেফতার আ’পটুয়াখালীতে খালে পড়ে নিখোঁজ শিশুর লাশ উদ্ধারবরিশালে বিশ্ববিদ্যালয়ছাত্রীর মৃত্যু, পুলিশ অবশেষে ফেরি চলাচলের অনুমতিসাবধান / টাকায় করোনা ভাইরাস“অপরাধ মুক্ত সমাজ বিনির্মানে কাজ করতে চাই R
%d bloggers like this: