মেহেন্দীগঞ্জে নদীতে হেলে পড়েছে বিদ্যালয় ভবন

  • আপডেট টাইম : আগস্ট ২৭ ২০২০, ০৩:০৫
  • 66 বার পঠিত
মেহেন্দীগঞ্জে নদীতে হেলে পড়েছে বিদ্যালয় ভবন

বরিশালের মেহেন্দীগঞ্জ উপজেলার শ্রীপুর ইউনিয়নের চরবগী চৌধুরীপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভবনটি নদীতে বিলীন হয়ে যাচ্ছে। ওই দোতলা ভবনটি তিন বছর আগে নির্মাণ করা হয়েছিল।
এ বিষয়ে শ্রীপুর ইউনিয়নের কয়েকজন বাসিন্দা বলেন, বুধবার সকালে তেঁতুলিয়া নদীর অব্যাহত ভাঙনে চরবগী চৌধুরীপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভবনটি হেলে পড়ে। কয়েক দিনের মধ্যেই ভবনটি নদীতে বিলীন হয়ে যাবে। বিদ্যালয়টিতে চরসংলগ্ন এলাকার গ্রামগুলোর প্রায় ২০০ শিক্ষার্থী পড়াশোনা করত।করোনাভাইরাসের সংক্রমণের কারণে কয়েক মাস ধরে এখানে পাঠদান বন্ধ রয়েছে।
মেহেন্দীগঞ্জ উপজেলা প্রকৌশলীর কার্যালয় সূত্র জানায়, ২০১৫-১৬ অর্থবছরে প্রায় ৭০ লাখ টাকা ব্যয়ে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) এই বিদ্যালয়ে দোতলা ভবনটি নির্মাণ করে। ২০১৭ সালের শেষ দিকে এর নির্মাণকাজ শেষ হয়। এরপর নদীভাঙনের কবলে পড়ায় ২০ আগস্ট ভবনটি ভেঙে নেওয়ার জন্য নিলামের ডাক দেওয়া হয়। তবে ভাঙন এতটাই তীব্র যে নিলামে অংশ নিয়ে যে ব্যক্তি ভবনটি কিনে নিয়েছেন, তিনি এটি ভেঙে নিতে পারেননি।
বিদ্যালয় সূত্র জানায়, বিদ্যালয় ভবনটি নির্মাণের সময় তেঁতুলিয়া নদী এক কিলোমিটারের বেশি দূরে ছিল। এরপর গত দুই বছরে তেঁতুলিয়া নদীর অব্যাহত ভাঙনে বিদ্যালয় ভবনটির কাছাকাছি চলে আসে। কিছুদিন আগে ভাঙন রোধে বিদ্যালয়সংলগ্ন নদীতে বালুর বস্তাও ফেলা হয়। কিন্তু তাতে ভাঙন রোধ করা যায়নি।
বিদ্যালয়সংলগ্ন এলাকার কয়েকজন বলেন, চরবগী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশ দিয়ে একটি সড়ক ছিল। প্রায় ১০ কিলোমিটার দীর্ঘ ওই সড়কটির দুপাশেই বহু ঘরবাড়ি ছিল। কিন্তু কয়েক বছর ধরে নদীভাঙনে ওই সড়কসহ বসতভিটা, জমি সবই নদীতে বিলীন হয়েছে।
সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ওই ভবনটির বিষয়ে জানতে চাইলে মেহেন্দীগঞ্জ উপজেলা প্রকৌশলী মো. বোরহান উদ্দিন মোল্লা বৃহস্পতিবার সকালে প্রথম আলোকে বলেন, ভবনটি এখন নদীতে বিলীনের অপেক্ষায় আছে। যখন এটি নির্মাণ করা হয়, তখন নদী থেকে প্রায় দুই কিলোমিটার দূরে ছিল। দুবছরে ভাঙতে ভাঙতে নদী এখানে চলে এসেছে। তিনি আরও বলেন, ‘এখন আমরা নদীতীরে এমন বিদ্যালয় নির্মাণ না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। গত কয়েক বছরে আমরা এ ধরনের কয়েকটি বহুতল ভবন নির্মাণের প্রকল্প বাদ দিয়ে টিনশেড ভবন নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছি, যাতে নদীভাঙন হলে দ্রুত বিদ্যালয়ের অবকাঠামো সরিয়ে নেওয়া যায় এবং ক্ষয়ক্ষতি কমিয়ে আনা সম্ভব হয়।’

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর

হালিমা খাতুন স্কুলের ভর্তি বিজ্ঞপ্তি, বরিশাল







ফেসবুক কর্নার

শিরোনাম
বরিশালে ‘ফেসবুক লাইভে’ গিয়ে যুবকের আত্মহত্যকলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের টিকা দবরিশালে বাসদের চাঁদাবাজি মামলার গ্রেফতার আ’পটুয়াখালীতে খালে পড়ে নিখোঁজ শিশুর লাশ উদ্ধারবরিশালে বিশ্ববিদ্যালয়ছাত্রীর মৃত্যু, পুলিশ অবশেষে ফেরি চলাচলের অনুমতিসাবধান / টাকায় করোনা ভাইরাস“অপরাধ মুক্ত সমাজ বিনির্মানে কাজ করতে চাই Rকুয়াকাটার সৈকতে ভেসে আসছে একের পর এক মৃত ডলফিহেফাজতের তাণ্ডব: সরাইল থানার ওসি নাজমুলকে বরউজিরপুরের শিকারপুর খেয়াঘাট তো নয় যেন মরন ফাদ !ঈদের আগেই কল্যঅন ট্রাস্টের টাকা পাচ্ছেন অবসরভরণপোষন চাওয়ায় বৃদ্ধ বাবাকে পিটিয়ে দুই হাত ভখালেদার বিদেশে চিকিৎসার অনুমতি মেলেনিআস‌ছে ক‌রোনার ৩য় ঢেউ/ প‌রি‌স্থি‌তি হ‌তে পা‌
%d bloggers like this: