নবজাতককে দাফন করতে এসে একই পরিবারের সবাই নিহত

  • আপডেট টাইম : সেপ্টেম্বর ০৯ ২০২০, ০৬:০২
  • 70 বার পঠিত
নবজাতককে দাফন করতে এসে একই পরিবারের সবাই নিহত

শামীম আহমেদ,॥

সদ্য ভূমিষ্ট নবজাতক মেয়ে শিশুর তামান্না মরদেহ নিয়ে ঢাকা থেকে অ্যাম্বুলেন্সে ঝালকাঠির বাউকাঠির বাড়িতে ফেরার পথে ছয়জন নিহত হয়েছেন সড়ক দুর্ঘটনায়। নিহতদের মধ্যে একই পরিবারের চারজন এবং অ্যাম্বুলেন্সটির চালক ও তার সহকারী বলে জানিয়েছে পুলিশ।

নিহতরা হচ্ছেন, বাউকাঠি গ্রামের আরিফ হোসেন, আরিফের বোন শিউলী বেগম, আরিফের মা কহিনুর বেগম, ভাই তারেক রহমান, সম্মন্ধি নজরুল ইসলাম এবং অ্যাম্বুলেন্সচালক আলমগীর হোসেন। এই তথ্য নিহত আরিফের ফুফাতো ভাই রাশেদুল হাসান সুমনের বরাত দিয়ে নিশ্চিত করেছেন উজিরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জিয়াউল আহসান।

আজ বুধবার (০৯ সেপ্টেম্বর) বিকেল সাড়ে চারটার দিকে ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের উজিরপুর উপজেলার আটিপাড়া এলাকায় বাস, কাভার্ডভ্যান ও অ্যাম্বুলেন্সের ত্রিমুখী সংঘর্ষে এই মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে।

ওই ছয়জন নিহত হওয়া ছাড়াও কমপক্ষে ২০ জন যাত্রী আহত হয়েছেন ওই দুর্ঘটনায়। উজিরপুর থানা ও গৌরনদী হাইওয়ে থানা পুলিশ উদ্ধার তৎপরতা চালাচ্ছে।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে উজিরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ কর্মকর্তা (ওসি) জিয়াউল আহসান জানান, আরিফের চারদিন আগে ঢাকার উত্তরার শিনশিন জাপান বেসরকারী হাসপাতালে কন্যাসন্তানটি জন্ম নেয়। তারা মেয়েটির নাম রাখেন তামান্না। বুধবার হাসপাতালে মারা যায়। আরিফের স্ত্রী তিন্নি বেগমকে ঢাকার বাসায় রেখে মৃত নবজাতক তামান্নার মরদেহ নিয়ে গ্রামের বাড়ি ঝালকাঠির বাউকাঠিতে ফিরছিলেন পুরো পরিবারের সদস্যরা। পথিমধ্যে সড়ক দূর্ঘটনায় এই বিয়োগান্তক ঘটনাটি ঘটলো।

তিনি জানান এ্যাম্বুলেন্স ছাড়া অন্য দুটি পরিবহনের কেউ নিহত হয়েছেন বলে এখনো সংবাদ পাওয়া যায়নি।

ইতোমধ্যে মরদেহগুলো গৌরনদী হাইওয়ে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। বৃষ্টি উপেক্ষা করেই উদ্ধার অভিযান শেষ করে দুর্ঘটনায় পতিত গাড়িগুলো সড়ক থেকে সরিয়ে রাখা হয়েছে। বর্তমানে মহাসড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে।

গৌরনদী হাইওয়ে থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) অশোক কুমার এবং প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ঢাকার উত্তরা থেকে বরিশালগামী শিশুর মরদেহবাহী অনিক অ্যাম্বুলেন্সটির (ঢাকা মেট্রো-ছ-৭১১৭-১৩) সঙ্গে বরিশাল থেকে ছেড়ে আসা খুলনার গাজী রাইস মিলের কাভার্ডভ্যানটির (ঢাকা মেট্রো-ট ১১৬৩৬৮) মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। একই সময় পেছনে থাকা কুয়াকাটা থেকে ঢাকাগামী মায়া পরিবহনের দূরপাল্লার যাত্রীবাহী বাসটি (খুলনা মেট্রো ব ১১-০১৭১) কাভার্ডভ্যানটিকে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই পাঁচজনের মৃত্যু হয়। গুরুতর আহত একজনকে হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানে তার মৃত্যু হয়।

উজিরপুর থানার ওসি জিয়াউল আহসান আরও জানান, তার থানার পুলিশ ও গৌরনদী হাইওয়ে থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধার তৎপরতা চালায়। আহতদের উদ্ধার করে উজিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতাল ও বরিশাল শের-ই – বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

উদ্ধার অভিযান থেমে থেমে চালাতে হয় উল্লেখ করে জিয়াউল আহসান বলেন, বিকেল থেকেই প্রচণ্ড বৃষ্টি হচ্ছে উজিরপুরে। দুর্ঘটনায় অ্যাম্বুলেন্সটি দুমড়ে গেছে। গাড়ি কেটে মরদেহ ও আহতদের উদ্ধার করতে হয়।

মূলত চালকদের বেপরোয়া গতি এবং প্রবল বৃষ্টির কারণে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে বলে প্রাথমিক ধারণা করা হচ্ছে।

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর







ফেসবুক কর্নার

শিরোনাম
দৌলতখানে সন্ত্রাসী হামলায় সাংবাদিক আহতআল্লামা শফী মারা গেছেনগলাচিপায় যৌতুকের দাবীতে গৃহবধুর দাঁত উপড়ে ফেপটুয়াখালীতে পৈত্রিক সম্পত্তি রক্ষার দাবীতে নলছিটিতে ছাত্রদলের আহ্বায়ক কমিটি গঠন, একাংশেঝালকাঠিতে করোনা উপসর্গে গৃহবধূর মৃত্যুঝালকাঠিতে বিদ্যালয়ের শহীদ মিনার ভাঙায় ক্ষোভমেয়ে হত্যার বিচার চেয়ে দ্বারে দ্বারে ঘুরছে বমনপুরার মেঘনায় ১২ কিলোমিটার এলাকায় গাছের খুঁবরিশাল থেকে বেনাপোলগামী বাস মাগুরায় দুর্ঘটনএইচএসসি, জেএসসির সিদ্ধান্ত নিতে ২৪ সেপ্টেম্ববরিশালের উজিরপুরে নিরাপদ পান উৎপাদনের ওপর মাবরিশালে র‍্যাবের অভিযানে বিপুল পরিমান ফেন্সমনপুরা-চরফ্যাসন আসনের সাবেক সংসদের মৃত্যু বাপটুয়াখালীতে র‌্যাব কর্তৃক ৪,৫৪৫ কেজি পলিথিন
%d bloggers like this: