পারাবত-১১তে নারী খুন ॥ কামরুলকে খুঁজছে বরিশাল পুলিশ

  • আপডেট টাইম : সেপ্টেম্বর ১৫ ২০২০, ০৬:০৯
  • 8 বার পঠিত
পারাবত-১১তে নারী খুন ॥ কামরুলকে খুঁজছে বরিশাল পুলিশ

বিলাসবহুল এমভি পারাবত-১১ লঞ্চের কেবিনে ধর্ষণ শেষে শ্বাসরোধে হত্যার ঘটনার ২৪ ঘন্টায়ও কোন ক্লু পায়নি পুলিশ। তবে সিসি ফুটেজে পাওয়া ছবিতে সন্দেজনক যুবককে খুজছে পুলিশ। ধারণা করা হচ্ছে যুবকের নাম কামরুল। তাকে পাওয়া গেলে কেবিনে নিহত মুহলার পরিচয় এবং হত্যার রহস্য উদঘাটিত হবে বলে মনে করা হচ্ছে। এই হত্যাকান্ডে কোতয়ালি মডেল থানায় পুলিশ বাদী হয়ে একটি মামলা করলেও এতে কে বা কারা জড়িত সে সম্পর্কে কোন কূলকিনারা করতে পারছেনা। রাজধানী ঢাকা থেকে বরিশালগামী ওই লঞ্চটির তৃতীয় তলার ৩৯১ নম্বর কেবিনে রোববার রাতে যেকোন এক সময় নারীকে হত্যা করা হয়। সোমবার সকালে চল্লিশোর্ধ্ব নারীর লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালে পাঠায় নৌ-পুলিশ। পুলিশ প্রাথমিকভাবে এ বিয়োগান্তের ঘটনাটি স্বাভাবিকভাবে নিলেও কয়েক ঘন্টার মাথায় লঞ্চের সিটিটিভির ফুটেজ পরীক্ষায় বেড়িয়ে আসে চাঞ্চল্যকর তথ্য। সেখানে দেখা যায়, পঞ্চাশের কাছাকাছি বয়সি এক পুরুষের সাথে নারী লঞ্চে ওঠেন এবং কেবিনে প্রবেশ করেন। ফলে পুলিশ নিশ্চিত হয় নারীকে রাতে ধর্ষণ শেষে ওই ব্যক্তি হত্যা করে পালিয়ে গেছে। তাছাড়া শেবাচিমের চিকিৎসকরাও নারীকে ধর্ষণ শেষে শ্বাসরোধ করে হত্যার আলামত পেয়েছে।

নারীকে ধর্ষণ শেষে হত্যা করা হয়েছে এরুপ তথ্য নিশ্চিত হয়ে বরিশাল পুলিশ ওই দিন কেবিনে থাকা ব্যক্তিসহ নারীর পরিচয় খুঁজতে শুরু করে। পুলিশ জানায়, হত্যাকারী তার মিশন বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে বেশকিছু কৌশল অবলম্বন করে অনেকটা নিরাপদে লঞ্চ ত্যাগ করে। সেক্ষেত্রে ওই ব্যক্তি নিজেকে কামরুল পরিচয় দিয়ে লঞ্চের কেবিন বুকিং করা ছাড়াও ভুয়া একটি মোবাইল নম্বার দিয়েছে। সেই নম্বারে যোগাযোগ করলে অপরপ্রান্ত থেকে এক ব্যক্তি রিসিভ করে কুমিল্লায় অবস্থানের কথা জানান। এবং ওই ব্যক্তি বরিশালে কোনদিও আসেনি বলে দাবি করেন। অবশ্য পুলিশও বিভিন্ন মাধ্যম নিশ্চিত হয়, এই ব্যক্তি আসলেই ঘটনা সম্পর্কে ওয়াকিবহাল নন এবং ঘাতক কথিত কামরুল নিজেকে রক্ষায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নজর এড়াতে এমন কৌশল নিয়েছে।

বরিশাল পুলিশের দায়িত্বশীল কর্মকর্তা জানান, টিকিট বুকিং অনুযায়ী কামরুল নামের ওই ব্যক্তি ছদ্মবেশ ধারণ করে লঞ্চের কেবিনে ওঠে এবং কিলিংমিশন বাস্তবায়ন করে পালিয়ে গেলেও সিসি টিভির ফুটেজে সে ধরা পড়েছে। কিন্তু সেখানেও সে কৌশল নিয়েছে। লঞ্চে প্রবেশ এবং মিশন বাস্তবায়ন করে বেড়িয়ে যাওয়ার সময় মাক্স পরিহিত ছিল। পুলিশ এখন ওই কথিত কামরুলকে হন্য হয়ে খোঁজার পাশাপাশি মাঝবয়সী নারীর পরিচয় নিশ্চিত হতে তৎপরতা শুরু করেছে। ইতিমধ্যে সারাদেশের থানাগুলোতে ঘাতকসহ নিহত নারীর ছবি পাঠিয়ে সনাক্তকরণে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর







ফেসবুক কর্নার

শিরোনাম
পায়রা বন্দরে ভূমি অধিগ্রহনে ক্ষতিগ্রস্থদের কলাপাড়ায় বিষাক্ত গ্যাস ট্যাবলেট খেয়ে এক শির্গলাচিপায় কাঁকড়া চাষে সফল চাষিরাগলাচিপায় সুশীলন এমার্জেন্সি নিউট্রিশন প্রকপটুয়াখালীতে পাঁচটি মাদক মামলার ওয়ারেন্ট’র আকুয়াকাটায় ক্রমশই বাড়ছে অপরাধমূলক কর্মকান্ডমনপুরা সংরক্ষিত বন উজাড় করে চলছে সেন্টারিং এপাথরঘাটায় ঘরের পাটাতন ভেঙে ফুটফুটে এক শিশুর তালতলীতে ছাত্রদলের ১১ নেতার পদত্যাগবরিশাল থেকে প্লাজমা দিতে ঢাকায় গেলেন ২১ পুলিপ্রধানমন্ত্রীর দেয়া ৪টি হাইফ্লো ন্যাজাল ক্যবরিশাল নগরীতে রিক্সা-ভ্যান শ্রমিকদের ৭ দাবীতবরিশালে পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে হামলা ও ছিনলছিটিতে ছাত্রদলের আহ্বায়ক কমিটিকে অবা‌ঞ্ছসালমান শাহ’র ৪৯তম জন্মদিন আজ
%d bloggers like this: