পটুয়াখালীতে বসতবাড়ি থেকে উচ্ছেদ চেষ্টার বিচার দাবী

  • আপডেট টাইম : অক্টোবর ২৬ ২০২০, ০৩:২৬
  • 112 বার পঠিত
পটুয়াখালীতে  বসতবাড়ি  থেকে উচ্ছেদ চেষ্টার  বিচার দাবী

পটুয়াখালী প্রতিনিধিঃ পৈতৃক সূত্রে প্রাপ্ত মাথাগোজার বসত ভিটা থেকে উচ্ছেদ করার চেষ্টার প্রতিকার চেয়ে দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন এতিম ছেলে-মেয়েরা। থানা পুলিশের কাছে অভিযোগের প্রতিকার না পেয়ে লিখিতভাবে পুলিশ প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন ৮ ভাই বোনের পক্ষে মেঝ বোন দিনমজুর শাহিনুর বেগম। এ ঘটনাটি পটুয়াখালী জেলার মির্জাগঞ্জ উপজেলার সদর ইউনিয়নে উত্তর সুবিদখালী কলেজের সামনে কামার হাওলা এলাকায়।
পটুয়াখালী জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) এর কাছে লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানাগেছে, অভিযোগকারীনীর চাচাতো ভাই মাসুদ খান (৪০), খলিল খান(২৮), মেহেদী হাসান(২৪) ও মিঠুন খান (১৯) ও ভ্রাতুষ্পুত্র সাবেক ইউপি মেম্বর নাসির হাওলাদার অভিযোগকারিনীর পিতা মোঃ ফটিক খানের মৃত্যুর পূর্বে চাচা মোঃ গোলাপ খানের সাথে জমি জমার ভোগদখল নিয়া বিরোধ অত্র এলাকার চেয়ারম্যানসহ গন্যমান্য ১১ (এগার জন) জন সালিশ বৈঠকে তার বাবা ফটিক খানকে বসতবাড়ী থেকে ০.২২ (বাইশ) শতাংশ জমি মাপিয়া ভোগ দখলে দেন। তার (অভিযোগকারিনী) দাদা হানিফ খানের নাল জমি তার চাচা গোলাপ খান দাদার কাছ থেকে জাল – জালিয়াতী করে সাব কবলা এবং দানপত্র দলিল রেজিঃ করিয়া নেয়। এ ঘটনা প্রকাশ হলে বিগত ১৫.১০. ১৯৬৩ ইং তারিখ চাচা গোলাপ খান কিছু জমি তার দাদাকে ফেরত দিলেও সম্পূর্ন জমি ফেরত দেন নাই। বাবা ফটিক খান তার জীবদ্দশায় উত্তর বসত বাড়ীতে ঘর দরজা নির্মান করে অভিযোগকারিনী তার ৮ ভাই বোনদেরকে নিয়ে বসবাস করা অবস্থায় বাবা মৃত্যু বরন করিলে বাবার রেখে যাওয়া বসত বাড়ীতেই বসবাস করে আসতে থাকলেও তাদেরকে বাবার কোন নাল জমি ভোগ করতে দেয়নি চাচাতো ভাইরা।
চাচাতো ভাইরা অত্যন্ত প্রভাবশালী এবং তাহাদের আত্নীয় স্বজনও অনেক প্রভাবশালী হওয়ায় শালিস বিচার মানছে না বরং বাবার রেখে যাওয়া বসতবাড়ী থেকে উচ্ছেদের চেষ্টা করছে প্রভাবশালী চাচাতো ভাইরা। তারা গভীর রাতে ঘরের চালে ইট, পাটকেল নিক্ষেপ করে। ঘরের দরজায় ফঁাকা দিয়া ঘরের মধ্যে রামদা, ছেনা ঢুকাইয়া দিয়ে খুন জখম করার ভয়ভীতি প্রদর্শন করে। শাহিনুররা সেচ্ছায় বসতবাড়ী ছেড়ে না গেলে খুন জখম করে লাশ গুম করে ফেলার হুমকি দেয়। বসতঘর নির্মান করতে গেলে মাসুদ খানগং ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে খুন জখমের ভয়ভীতি দেখায়ে কাজ বন্ধ করে রাখে বলে জানান দিনমজুর শাহিনুর ।
অভিযোগকারীনি শাহিনুর বেগম ও তার বোন কোহিনুর বেগম সাংবাদিকদের জানান, উচ্ছেদ চেষ্টার প্রতিকারের জন্য মির্জাগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দাখিল করলেও কোন ফল না পেয়ে জেলা পুলিশ প্রশাসনের কাছে লিখিত অভিযোগ করেছি। বর্তমানে আমরা অসুস্থ বৃদ্ধা মাতাকে নিয়ে খোলা আকাশের নিচে থাকছি। বাবার রেখে যাওয়া বসতভিটায় ঘর নির্মানকরে নিরাপদে বসবাস করতে পারি তার জন্য প্রশাসনের কাছে জোর দাবী করেছেন শাহিনুর বেগম ও কোহিনুর বেগমসহ ৮ ভাইবোন। #

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর







ফেসবুক কর্নার

শিরোনাম
আ’লীগের কেন্দ্রীয় নেতা আ খ ম জাহাঙ্গীর করোনা বৌভাতের অনুষ্ঠানে হল বরের জানাজা, কনে গেল হাসঝালকাঠিতে নাগরিক অ্যাডভোকেসি ফোরামের কমিটি পবিপ্রবিতে শিক্ষক-কর্মচারীদের সকল নিয়োগ পরীপটুয়াখালীতে স্বাস্থ্য সহকারীদের কর্মবিরতিরবরিশালে অস্ত্র, ইয়াবা, গাঁজাসহ সন্ত্রাসী মনিকলাপাড়ায় পৌর ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক ইয়াবমহিপুরে প্রতিবন্ধী দিবস পালিতপারিবারিক কলহ / শিশু কন্যাকে হত্যার পর মায়ের আবরিশালে ৩য় শ্রেণীর স্কুলছাত্রী ধর্ষণ ও হত্যাফাইজারের টিকার অনুমোদন দিল যুক্তরাজ্যকুয়াকাটা মহা সড়কে ট্রাক ও অটোরিক্সার মুখোমুখঝালকাঠি থেকে বরিশাল-খুলনাসহ ১০ রুটে বাস চলাচ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরো প্রাণ গেলো ৩৮ জনের, শনাক্নভেম্বরে ধর্ষণের শিকার ১৫৩ নারী ও শিশু
%d bloggers like this: