পু‌লি‌শের সাম‌নেই মা-বাবাকে মেরে হাসপাতালে পাঠাল মেয়ে

  • আপডেট টাইম : নভেম্বর ২০ ২০২০, ০২:৪০
  • 27 বার পঠিত
পু‌লি‌শের সাম‌নেই মা-বাবাকে মেরে হাসপাতালে পাঠাল মেয়ে

বরগুনা জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) কার্যালয়ে পুলিশের উপস্থিতিতেই মা-বাবাকে মেরে হাসপাতালে পাঠানোর অভিযোগ উঠেছে মেয়ে ও জামাতার বিরুদ্ধে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার সময় ডিবি পুলিশের দুজন কর্মকর্তাসহ চারজন সদস্য উপস্থিত ছিলেন। তবে পুলিশের দাবি, এমন ঘটনা অফিসে নয়; ঘটেছে অফিসের সামনে।

এ ঘটনায় আহতরা হলেন- বরগুনা সদর উপজেলার আয়লা-পাতাকাটা ইউনিয়নের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক আবদুস সোবহান ও তার স্ত্রী জাহানারা বেগম। তাদের উদ্ধার করে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আবদুস সোবহানের ছেলে জসীম উদ্দীন বলেন, ‘বাবা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক ছিলেন। ২০১৬ সালের জুন মাসে তিনি অবসরে যান। পরের বছর পেনশনের টাকা উত্তোলন করে ডাকবিভাগে ফিক্সড ডিপোজিট করে রাখেন। পেনশনের টাকা পাওয়ার পর থেকেই বোন সীমা আক্তার এক লাখ টাকা দাবি করতে থাকে এবং বিভিন্ন সময় বাবাকে হয়রানি করতে শুরু করে।’

তিনি আরও বলেন, ‘সবশেষ গত অক্টোবর মাসের মাঝামাঝি সময়ে বরগুনা জেলা গোয়েন্দা পুলিশ কার্যালয়ে আমি ও আমার বাবা এবং মায়ের কাছে টাকা পাবে- মর্মে একটি লিখিত অভিযোগ করে। পরে ডিবি পুলিশ গিয়ে আমার বাবাকে ডিবি কার্যালয়ে নিয়ে আসে। এরপর স্থানীয় আইনজীবী শফিকুল ইসলাম মজিদ সীমাকে চার শতাংশ জমির মূল্যবাবদ ৬০ হাজার টাকা দেয়ার শর্তে মুচলেকা দিয়ে বাবাকে ডিবি কার্যালয় থেকে ছাড়িয়ে আনেন। এ টাকা নভেম্বর মাসের ১৭ তারিখের মধ্যে পরিশোধের কথা ছিল।’

কিন্তু সীমা ৬০ হাজার টাকার পরিবর্তে এক লাখ টাকা দাবি করতে থাকে। এ নিয়ে ফের বিরোধ শুরু হয়। একপর্যায়ে মঙ্গলবার (১৮ নভেম্বর) দুপুরে ডিবির এএসআই মিজানুর রহমান ফের বাবাকে ধরতে আমাদের বাড়িতে আসেন। বিষয়টি নিয়ে আলোচনার জন্য বুধবার সন্ধ্যায় আইনজীবী আবদুল মজিদের চেম্বারে দেখা করতে যান বাবা। সেখান থেকে ফেরার পথে রাত সাড়ে ৯টার দিকে এএসআই মিজান বাবাকে ধরে ডিবি কার্যালয়ে নিয়ে আসেন।’

এ বিষয়ে ডিবির এএসআই মিজানুর রহমান মুঠোফোনে বলেন, ‘সীমার অভিযোগটি দেখার জন্য এসআই আশরাফ স্যারকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছিল। কিন্তু তিনি আমতলীতে থাকায় ওসি স্যার আবদুস সোবহানকে ডেকে আনার দায়িত্ব দিয়েছিলেন। বুধবার দুপুরে আমি তাদের বাড়িতে গিয়ে পাইনি, পরে ওনার স্বজনদের অনুরোধ করে আসি যাতে উনি বৃহস্পতিবার ডিবি কার্যালয়ে উপস্থিত হন। বৃহস্পতিবার রাতে আমি স্টেডিয়াম এলাকা থেকে বৈঠকের তারিখ নিশ্চিত করার জন্য তাকে ডেকে নিয়ে এসেছিলাম।’

জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-ডিবি) জাকির হোসেন মুঠোফোনে বলেন, ‘কার্যালয়ের ভেতরে নয়, বাইরে বাবা-মা ও মেয়ের সাথে সামান্য ঝামেলা হয়েছে।’

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর







ফেসবুক কর্নার

শিরোনাম
রানের পাহাড় টপকাতে পারল না ভারতকলাপাড়ায় দুই বনদস্যু আটকপটুয়াখালীর ডাবলুগঞ্জ ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুউজিরপুর পৌরসভা নির্বাচনে নৌকার একক কান্ডারী কলাপাড়ায় পৌর কাউন্সিলর হিসেবে দোয়া চেয়ে প্রচফিফা র‌্যাংকিংয়ে বাংলাদেশের উন্নতিমানুষকে আল্লাহর সাথে পরিচয় করানোর জন্যই চরমোরাজাপুরে যুবকের রক্ত মাখা লাশ উদ্ধারপটুয়াখালীতে বিদেশি মদসহ যুবক গ্রেফতারআবারও ভয়ঙ্কর হতে শুরু করছে মহামারি করোনাম্যারাডোনার মৃত্যু ঘিরে রহস্য, তদন্ত দাবি আইবরেণ্য অভিনেতা আলী যাকের আর নেইপ্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের বেতনও অনলাইজন্মদিন পালন করতে ডেকে নিয়ে বন্ধুকে খুন!৬ মাস পর অধ্যক্ষ পেলো বিএম কলেজ
%d bloggers like this: