শনিবার থেকে বাসে অর্ধেক যাত্রী, ভাড়া বাড়ছে না

  • আপডেট টাইম : জানুয়ারি ১২ ২০২২, ০৬:২০
  • 24 বার পঠিত
শনিবার থেকে বাসে অর্ধেক যাত্রী, ভাড়া বাড়ছে না

গত বছর করোনার ডেলটা ধরনের দাপটের মধ্যে দেশে গণপরিবহনে আসন সংখ্যার অর্ধেক যাত্রী নিয়ে চলাচলের নির্দেশনা ছিল, সংক্রমণ বাড়তে থাকায় আবার সেই নিয়ম ফিরছে
গত বছর করোনার ডেলটা ধরনের দাপটের মধ্যে দেশে গণপরিবহনে আসন সংখ্যার অর্ধেক যাত্রী নিয়ে চলাচলের নির্দেশনা ছিল, সংক্রমণ বাড়তে থাকায় আবার সেই নিয়ম ফিরছেফাইল ছবি: প্রথম আলো

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের নির্দেশনা মেনে অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে আগামী শনিবার থেকে বাস চলাচল করবে। এর জন্য ভাড়া বাড়ানো হচ্ছে না।

বুধবার বনানীতে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) প্রধান কার্যালয়ে পরিবহন মালিক–শ্রমিক নেতাদের সঙ্গে কর্মকর্তাদের বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়েছে।

বৈঠক শেষ বিআরটিএর চেয়ারম্যান নূর মোহাম্মদ মজুমদার এই সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন। তবে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সভাপতি মশিউর রহমান বলেন, যত আসন তত যাত্রী পরিবহন করার দাবি জানিয়েছেন তারা। তাদের এই দাবি বিবেচনার জন্য সড়ক পরিবহন মন্ত্রণালয়ে বিষয়টি পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিআরটিএ।

দেশে করোনা সংক্রমণ বাড়তে থাকায় বাস, ট্রেন ও লঞ্চে অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে যাত্রী পরিবহনসহ ১১ দফা নির্দেশনা দিয়েছে সরকার। এর আওতায় সারা দেশে সব ধরনের সামাজিক, রাজনৈতিক ও ধর্মীয় অনুষ্ঠান ও সমাবেশ বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে।

বিআরটিএ কার্যালয়ে বৈঠকে উপস্থিত সূত্র জানায়, পরিবহন মালিক–শ্রমিক নেতারা বলেছেন সব কিছু খোলা রেখে অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে বাস চালালে গণপরিবহনে সংকট তৈরি হবে। যাত্রীরা বাস পাবে না। এ ছাড়া পরিবহন মালিক–শ্রমিকেরা আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবে। যত আসন তত যাত্রী পরিবহন করলে সংকট কিছুটা কম হবে। এ পরিস্থিতিতে বিআরটিএর চেয়ারম্যান পরিবহন খাতের নেতাদের আশ্বস্ত করেন যে, তাদের দাবিটি প্রস্তাব আকারে সড়ক পরিবহন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হবে। তারা সরকারের নীতিনির্ধারকদের সঙ্গে কথা বলে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত দেবে।

বিআরটিএর সূত্র বলছে, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে বাস চালানোর যে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে, তা মানার সিদ্ধান্ত হয়েছে। এরপরও যত আসন তত যাত্রীর দাবিটি বিবেচনায় নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। অর্থাৎ যত আসন তত যাত্রীর দাবি সরকার আমলে না নিলে শনিবার থেকে অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখেই বাস চলবে।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির মহাসচিব খোন্দকার এনায়েত উল্যাহ বলেন, বাস্তবতা বিবেচনা করে যত আসন তত যাত্রীর প্রস্তাব তারা দিয়েছেন। এতে সরকার সায় দিলে পরিবহনে সংকট হবে না। তিনি জানান, সব চালক ও সহকারীকে টিকার আওতায় আনার বিষয়ে তারা একমত হয়েছেন। এ জন্য অগ্রাধিকারভিত্ততে পরিবহন শ্রমিকদের টিকাদান কর্মসূচি শুরুর দাবি জানানো হয়েছে। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা, বাসে স্যানিটাইজার রাখা, মাস্ক পরা নিশ্চিত করা—এসব বিষয়ে সবাই একমত হয়েছে।

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর

হালিমা খাতুন স্কুলের ভর্তি বিজ্ঞপ্তি, বরিশাল







ফেসবুক কর্নার

শিরোনাম
কোটি টাকার ইউএনও ভবন হস্তান্তরের আগেই সংস্কাভোলায় ৪০ মণ জাটকা জব্দ, ৭৮ জেলে আটকওয়ানডের সেরা ১০ বোলারের তালিকায় সাকিব-মিরাজএই মডেলের এককাপ প্রসাবের মূল্য ৬ হাজার টাকামাসুদ রানা সিরিজের স্রষ্টা কাজী আনোয়ার হোসেনসেফুদার বিচার শুরুসার্বভৌমত্বে আঘাত এলে বসে থাকবে না বাংলাদেশ : বোনকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় বড়ভাইকে কুপ৭ কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে বিসিসির পাল্টা আইনি বযুবদলের কমিটি বাতিলের দাবিতে উজিরপুরে নেতা-কশনাক্ত ছাড়ালো ৮ হাজার, মৃত্যু ১০মালয়েশিয়ার মেয়েদের ৮ উইকেটে হারাল বাংলাদেশসংক্রমণ বাড়লে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ: শিক্ষাকলাপাড়ায় ঐতিহ্যবাহী মহিষের লড়াইবরিশালে অটোরিকশা চালককে হত্যায় একজনের মৃত্য
%d bloggers like this: