মুক্তিযুদ্ধে বরিশালে শান্তি কমিটিতে ছিলেন যারা

  • আপডেট টাইম : ডিসেম্বর ১৫ ২০১৯, ০৮:৪৭
  • 72 বার পঠিত
মুক্তিযুদ্ধে বরিশালে শান্তি কমিটিতে ছিলেন যারা

মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় বরিশাল জেলা শান্তি কমিটির সদস্য সংখ্যা ছিলো ৩২ জন। স্বাধীনতার পরবর্তী সময়ে শান্তি কমিটির জেলা সভাপতি আব্দুর রহমান বিশ্বাস ছিলেন বিএনপি সরকারের আমলে রাষ্ট্রপতি।

ওই তালিকা অনুযায়ী জেলা শান্তি কমিটিতে সভাপতি ছিলেন দুইজন। প্রথমজন হচ্ছেন এ্যাডভোকেট আব্দুর রব। তিনি ১৯৭১ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করেন।

এরপর ওই বছরের ৩০ সেপ্টেম্বর থেকে সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন ১৯৯১ সাল থেকে ১৯৯৬ সাল পর্যন্ত বিএনপি সরকারের রাষ্ট্রপতি থাকা আব্দুর রহমান বিশ্বাস।

মুক্তিযোদ্ধাদের দেয়া তথ্যে জানা গেছে, ওই শান্তি কমিটিতে একজন হিন্দু আইনজীবীও ছিলেন। চারজন সহ-সভাপতি পদের একজন ছিলেন বরিশাল নগরীর হাসপাতাল রোডের বাসিন্দা এ্যাডভোকেট প্রমথ কুমার সেন। তিনি (প্রমথ কুমার সেন) দেশ স্বাধীনের পর ভারতে পালিয়ে যায়।

সেখানে অবস্থানকালেই সে মারা যায়। কমিটির অপর তিন সহ-সভাপতি হচ্ছেন-বরিশাল নগরীর সদর রোডের শাহজাহান চৌধুরী, প্যারারা রোডের বাসিন্দা এ্যাডভোকেট সামসের আলী এবং সৈয়দ হাতেম আলী (হাতেম মীরা)। এদের মধ্যে দেশ স্বাধীন হবার পর পাকিস্তানীদের সাথে পালাতে গিয়ে সদর রোডের শাহজাহান চৌধুরী মারা যায়।

শান্তি কমিটির সেক্রেটারী ছিলেন-নগরীর সিএন্ডবি রোডের বাসিন্দা এ্যাডভোকেট আবুল হোসেন সিকদার। জয়েন্ট সেক্রেটারী ছিলেন জামায়াত নেতা নগরীর নুরিয়া স্কুলের তৎকালীন প্রধানশিক্ষক খলিলুর রহমান।

ট্রেজারার ছিলেন বরিশালের সাবেক পৌর চেয়ারম্যান গোলাম মাওলা। দপ্তর সম্পাদক ছিলেন নগরীর আমানতগঞ্জ এলাকার বাসিন্দা সৈয়দ শের আলী (মোক্তার)।

ওই কমিটির সদস্যরা হলেন-নগরীর গীর্জামহল্লা সড়কের বাসিন্দা মাওলানা বশিরুল্লাহ আতাহারী, নগরীর কলেজ রোডের এ্যাডভোকেট বিডি হাবিবুল্লাহ, আলেকান্দার আদম আলী হাজী, সৈয়দ হাতেম আলী কলেজের তৎকালীন অধ্যক্ষ কাজী মোতাহার হোসেন,

সদর রোডের নজিব উদ্দীন আহম্মেদ, হাটখোলার সামসুদ্দিন তালুকদার, সদর রোডের ডাঃ ইমান আলী, কাউনিয়ার নোয়াব আলী, হাটখোলার আমজেদ মৃধা, নবগ্রাম রোডের মিনহাজউদ্দিন আহমেদ খান, আলেকান্দার মীর আনোয়ার হোসেন, বগুড়া রোডের সৈয়দ ফজলে আলী,

সৈয়দ মুনসুর আলী (মুনসুর মীর), ভাটিখানার আতাউর রহমান মুন্সী, নতুনবাজারের মতিয়ার রহমান তালুকদার, বৈদ্যপাড়ার কাঞ্চন গাজী, নবগ্রাম রোডের রাজ্জাক চৌধুরী, বাজার রোডের স্বরুব আলী মিয়া, হাসপাতাল রোডের জবান আলী খান,

ব্রাউন কম্পাউন্ড রোডের আফসার উদ্দিন সরদার এবং বিএম স্কুল রোড এলাকার বাসিন্দা আব্দুল মজিদ মুন্সী।

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর







ফেসবুক কর্নার

শিরোনাম
দৌলতখানে সন্ত্রাসী হামলায় সাংবাদিক আহতআল্লামা শফী মারা গেছেনগলাচিপায় যৌতুকের দাবীতে গৃহবধুর দাঁত উপড়ে ফেপটুয়াখালীতে পৈত্রিক সম্পত্তি রক্ষার দাবীতে নলছিটিতে ছাত্রদলের আহ্বায়ক কমিটি গঠন, একাংশেঝালকাঠিতে করোনা উপসর্গে গৃহবধূর মৃত্যুঝালকাঠিতে বিদ্যালয়ের শহীদ মিনার ভাঙায় ক্ষোভমেয়ে হত্যার বিচার চেয়ে দ্বারে দ্বারে ঘুরছে বমনপুরার মেঘনায় ১২ কিলোমিটার এলাকায় গাছের খুঁবরিশাল থেকে বেনাপোলগামী বাস মাগুরায় দুর্ঘটনএইচএসসি, জেএসসির সিদ্ধান্ত নিতে ২৪ সেপ্টেম্ববরিশালের উজিরপুরে নিরাপদ পান উৎপাদনের ওপর মাবরিশালে র‍্যাবের অভিযানে বিপুল পরিমান ফেন্সমনপুরা-চরফ্যাসন আসনের সাবেক সংসদের মৃত্যু বাপটুয়াখালীতে র‌্যাব কর্তৃক ৪,৫৪৫ কেজি পলিথিন
%d bloggers like this: