অকাল বর্ষনে কলাপাড়ায় ইট ভাটায় ব্যাপক ক্ষতি

  • আপডেট টাইম : জানুয়ারি ০৪ ২০২০, ০৯:৫৮
  • 138 বার পঠিত
অকাল বর্ষনে কলাপাড়ায় ইট ভাটায় ব্যাপক ক্ষতি

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি।।পটুয়াখালীর কলাপাড়ার শীতকালীন ভাড়ি বর্ষনে ইটভাটার প্রায় দেড় কোটি টাকা মূল্যের কাঁচা ইট সম্পূর্ণ নস্ট হয়ে গেছে। প্রতিটি ইটভাটায় শত শত শ্রমিক দিন-রাত একটান শ্রমদিয়ে ইট প্রস্তুত করে। কিন্তু শুক্রবার থেকে শনিবার পর্যন্ত ভাড়ি ও গুড়ি গুড়ি বৃস্টিপাতে পানি জমে কাঁচা ইট নস্ট হয়ে গেছে।

সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে,উপজেলার টিয়াখালী, নীলগঞ্জ ও চাকামাইয়া ইউনিয়নের আন্ধামানিক নদীসহ বিভিন্ন নদীর তীরে ওঠা ব্রিকস এর মাঠে তৈরী করা কাঁচা ইট গুলো বৃস্টির কারনে কাঁদা মাটিতে পরিনত হয়েছে। ইট তৈরীর মৌসুম শুরু হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে দুই দফা বৃস্টিপাত হওয়ায় প্রতিটি ব্রিকসের প্রায় পাঁচ থেকে সাত লাখ কাঁচা ইট সম্পূর্ণ নস্ট হয়ে গেছে। এতে ৩০টির অধিক ইট ভাটার প্রায় দেড় কোটি টাকা লোকসান হয়েছে বলে ইটভাটা মালিকদের সূত্রে জানা গেছে।

সাগর ব্রিকস এর মালিক শওকত হোসেন তপন বিশ্বাস জানায়, পৌষের মাঝামাঝি সময়ের অকাল বৃস্টিতে পটুয়াখালীর কলাপাড়ার ৩০টির অধিক ইটভাটার মালিকদের কয়েক কোটি কাঁচা ইট নস্ট হয়ে গেছে। ইট তৈরীর প্রথম মৌসুমে প্রতিটি ইটভাটায় শত শত শ্রমিক দিন-রাত একটানা শ্রমদিয়ে ইট প্রস্তুত করে। প্রস্তুত করা ইট রোদে শুকিয়ে চুল্লিতে দেয়ার
আগ মূহুর্তে ভাড়ি বর্ষনে পুরোপুরি নস্ট হওয়ায় কিংকর্তব্য বিমূঢ় হয়ে পরেছে প্রতিটি ইটভাটার মালিক। ইট নস্ট হওয়ায় ইটভাটার মালিকদের কমপক্ষে দেড় কোটি টাকার ইট সম্পূর্ণ নস্ট হয়ে গেছে।

ইটভাটার মালিকদের বর্তমান অবস্থা এমন হয়েছে যে, আর্থিক লোকসান কাটিয়ে ওঠার সামর্থও নাই, সামাজিক অবস্থানের কারনে আর্থিক সহায়তা পাওয়ারও কোন উপায় নেই। শুধু লোকসানের ভাবনায় তিলে তিলে নিজেদের বিপর্যস্ত করা ছাড়া করার কিছুই থাকছেনা ইটভাটা মালিকদের।

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর

হালিমা খাতুন স্কুলের ভর্তি বিজ্ঞপ্তি, বরিশাল







ফেসবুক কর্নার

শিরোনাম
রমজা‌নে‌ওে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলাশিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলছে ৩০ মার্চচলে গেলেন মিডিয়াঙ্গনের পরিচিত মুখ মুরাদ হোসেযুক্তরাষ্ট্রে আবারও চালু হল গ্রিন কার্ডএকসঙ্গে বিষপান করে প্রেমিকের মৃত্যু, প্রেমিকসংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রীবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোরের প্রতিবেদন মুছতে ব‌রউন্নীত হচ্ছে সরকারি কর্মচারীদের গ্রেড ও বেতননির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবি ৬ মেয়হিন্দু সেজে দুই বিয়ে করলো ইউসুফ, অতঃপর…১০ মাসে আত্মহত্যায় মৃত্যু ১১ হাজার, করোনায় ৫ হবরিশালে ইশরাকের সামনে বিএনপির দুই গ্রুপের চেশেষ মুহুর্তে বিএনপির সমাবেশ স্থল পরিবর্তন করতথ্য গোপন করায় দু’বছর পর পদ হারালেন উপজেলা চেকলেজ-বিশ্বদ্যিালয়ে ভর্তির আগে ডোপ টেস্ট করা
%d bloggers like this: