মিথ্যা সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদে

কুয়াকাটা পৌর মেয়রের সাংবাদিক সম্মেলন

  • আপডেট টাইম : জানুয়ারি ০৬ ২০২০, ০৯:৩৬
  • 1087 বার পঠিত
কুয়াকাটা পৌর মেয়রের সাংবাদিক সম্মেলন
সংবাদটি শেয়ার করুন....

পটুয়াখালী প্রতিনিধিঃ পটুয়াখালীর কুয়াকাটা পৌর মেয়রের বিরুদ্ধে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদে সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন জমির মালিক বেল্লাল মোল্লা।

গতকাল সোমবার সকাল ১১ টায় কুয়াকাটা প্রেসক্লাবের হলরুমে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। গত ৩ জানুয়ায়ী একটি জাতীয় দৈনিকে প্রকাশিত সংবাদে পৌর মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আঃ বারেক মোল্লার বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ করা হয়েছে। প্রকৃতপক্ষে পৌর মেয়র দলের পক্ষে জমির মালিক বেল্লাল মোল্লার কাছ থেকে একটি ঘর ভাড়া নিয়ে কুয়াকাটা পৌর আওয়ামীলীগের অফিসের কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছেন বলে লিখিত বক্তব্যে জানিয়েছেন জমির
মালিক বেল্লাল মোল্লা।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বেল্লাল মোল্লা বলেন, কুয়াকাটা পৌর মেয়র আওয়ামী লীগের অফিসের জন্য আমার ঘর ভাড়া নিয়েছেন। জাতীয় পার্টি, বিএনপি সহ বিভিন্ন দল থেকে আওয়ামীলীগে অনুপ্রবেশকারীরা রাজনৈতিক সুবিধা নেয়ার জন্য কুয়াকাটা পৌর মেয়রের নামে অপপ্রচার চালাচ্ছে। আমার ঘর ভাড়া নিয়ে কুয়াকাটা পৌর আওয়ামী লীগের অফিস করেছে পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র আঃ বারেক মোল্লা। তিনি বলেন, জেএল ৩৪নং লতাচাপলী মৌজার এসএ ১২২৭নং খতিয়ানের ৫১৭৮/১০০২, ৫১৮০/১০০৩ নং দাগের জমি থেকে মূল মালিক মরহুম সেকান্দার আলী শেখ। তিনি উক্ত জমি পটুয়াখালীর মরহুম মিলন কমিশনারের স্ত্রী উম্মে সালমার নিকট থেকে ২০০৯ সালের ১লা জানুয়ারী ২৭০৮নং সাব কবলা দলিল মূলে ০.১৬৫০ একর জমি কবলা সূত্রে ভোগবান মালিক দখলকার নিযুক্ত আছি। তিনি অভিযোগ করেন, ভাড়াটিয়াকে জমির মালিক উল্লেখ করে পত্রিকা ও টেলিভিশনে সংবাদ করায় তার মালিকানা স্বত্বকে প্রশ্নবিদ্ধ করা হয়েছে।

কুয়াকাটা প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি অনন্ত মুখর্জীর সভাপতিত্বে সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, লতাচাপলী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. আনছার উদ্দিন মোল্লা, মহিপুর থানা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক মাসুদ রানা, পৌর যুবলীগের আহবায়ক মোঃ ইসাহাক শেখ, পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি মো.মজিবর রহমান, ঘর ভাড়াটিয়া মোঃ আনোয়ার হোসেন, বেল্লাল খলিফা, মোঃ মহসিন মিলনসহ আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা ও কুয়াকাটা প্রেসক্লাবে কর্মরত গনমাধ্যমকর্মীরা।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত বেল্লাল মোল্লার ভাড়াটিয়া ঘর মালিক মোঃ আনোয়ার হোসেন, বেল্লাল খলিফা, মোঃ মহসিন মিলন বলেন, আমরা ঘর ভাড়া নিয়েছি বেল্লাল মোল্লার কাছ থেকে। সেখানে একটি পত্রিকায় মেয়রের কাছ থেকে ভাড়া নিয়েছি
বলে আমাদের সাক্ষাৎকার ছাপা হয়েছে। যা সত্য নয়। এ বিষয়ে আমাদের কোন সাংবাদিক বন্ধুর সাথে কথা হয়নি।
লতাচাপলী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও চেয়ারম্যান আনছার উদ্দিন মোল্লা বলেন, জাতীয় পার্টি সহ বিভিন্ন দল থেকে অনুপ্রবেশকারীদের নিয়ে কুয়াকাটা পৌর কাউন্সিলর মোঃ শাহ আলম হাওলাদার জমি দখল সহ সালিশী বানিজ্য করছে।
তিনি আরো বলেন, কাউন্সিলর শাহ আলম সরকারী জমি দখল করে মরিয়ম হোটেল নামে একটি আবাসিক হোটেল করেছে। এতে পৌর মেয়র বাধা দিলে তারা মেয়রের বিরুদ্ধে সাংবাদিকদের কাছে ভূল তথ্য দিয়ে নিউজ করিয়েছে। তারা মেয়রের
ভাবমুর্তি ক্ষুন্ন করার জন্য নানা ষড়যন্ত্র ও অপপ্রচারে লিপ্ত রয়েছে বলে লতাচাপলী ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আনছার উদ্দিন মোল্লা বলেন।

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর

ফেসবুক কর্নার

শিরোনাম
কোটার হার পরিবর্তন করতে পারবে সরকার, হাইকোর্ভোলায় কোটাবিরোধীদের পিটিয়ে হাসপাতালে পাঠাল তির-ধনুক দিয়ে বিবিসি সাংবাদিকের স্ত্রীসহ দুইবদলে যাওয়া পরীমনি১০ জনের দল নিয়ে উরুগুয়েকে হারিয়ে ফাইনালে কলমসংবাদ সম্মেলন ডেকেছে এনটিআরসিএশিক্ষার্থীরা বোধহয় সীমা অতিক্রম করে যাচ্ছেনজেলেদের চাল আত্মসাতের বিচার দাবিতে মানববন্ধবরিশালে পুলিশের বাঁধা ডিঙিয়ে মহাসড়ক অবরোধ শিপুলিশকে নিয়ে সংবাদ প্রকাশে সতর্কতার অনুরোধঢাকা-বরিশাল মহাসড়কে ২ বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষশিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে গ্রীষ্মের ছুটি কমল, শনিবাপ্রধানমন্ত্রী আগামীকাল ভারত যাচ্ছেনওয়েস্ট ইন্ডিজকে গুঁড়িয়ে সুপার এইট শুরু ইংল্যদক্ষিণ আফ্রিকার সঙ্গে লড়াই করে হারলো যুক্তরা
%d