মিথ্যা সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদে

কুয়াকাটা পৌর মেয়রের সাংবাদিক সম্মেলন

  • আপডেট টাইম : জানুয়ারি ০৬ ২০২০, ০৯:৩৬
  • 110 বার পঠিত
কুয়াকাটা পৌর মেয়রের সাংবাদিক সম্মেলন

পটুয়াখালী প্রতিনিধিঃ পটুয়াখালীর কুয়াকাটা পৌর মেয়রের বিরুদ্ধে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদে সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন জমির মালিক বেল্লাল মোল্লা।

গতকাল সোমবার সকাল ১১ টায় কুয়াকাটা প্রেসক্লাবের হলরুমে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। গত ৩ জানুয়ায়ী একটি জাতীয় দৈনিকে প্রকাশিত সংবাদে পৌর মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আঃ বারেক মোল্লার বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ করা হয়েছে। প্রকৃতপক্ষে পৌর মেয়র দলের পক্ষে জমির মালিক বেল্লাল মোল্লার কাছ থেকে একটি ঘর ভাড়া নিয়ে কুয়াকাটা পৌর আওয়ামীলীগের অফিসের কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছেন বলে লিখিত বক্তব্যে জানিয়েছেন জমির
মালিক বেল্লাল মোল্লা।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বেল্লাল মোল্লা বলেন, কুয়াকাটা পৌর মেয়র আওয়ামী লীগের অফিসের জন্য আমার ঘর ভাড়া নিয়েছেন। জাতীয় পার্টি, বিএনপি সহ বিভিন্ন দল থেকে আওয়ামীলীগে অনুপ্রবেশকারীরা রাজনৈতিক সুবিধা নেয়ার জন্য কুয়াকাটা পৌর মেয়রের নামে অপপ্রচার চালাচ্ছে। আমার ঘর ভাড়া নিয়ে কুয়াকাটা পৌর আওয়ামী লীগের অফিস করেছে পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র আঃ বারেক মোল্লা। তিনি বলেন, জেএল ৩৪নং লতাচাপলী মৌজার এসএ ১২২৭নং খতিয়ানের ৫১৭৮/১০০২, ৫১৮০/১০০৩ নং দাগের জমি থেকে মূল মালিক মরহুম সেকান্দার আলী শেখ। তিনি উক্ত জমি পটুয়াখালীর মরহুম মিলন কমিশনারের স্ত্রী উম্মে সালমার নিকট থেকে ২০০৯ সালের ১লা জানুয়ারী ২৭০৮নং সাব কবলা দলিল মূলে ০.১৬৫০ একর জমি কবলা সূত্রে ভোগবান মালিক দখলকার নিযুক্ত আছি। তিনি অভিযোগ করেন, ভাড়াটিয়াকে জমির মালিক উল্লেখ করে পত্রিকা ও টেলিভিশনে সংবাদ করায় তার মালিকানা স্বত্বকে প্রশ্নবিদ্ধ করা হয়েছে।

কুয়াকাটা প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি অনন্ত মুখর্জীর সভাপতিত্বে সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, লতাচাপলী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. আনছার উদ্দিন মোল্লা, মহিপুর থানা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক মাসুদ রানা, পৌর যুবলীগের আহবায়ক মোঃ ইসাহাক শেখ, পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি মো.মজিবর রহমান, ঘর ভাড়াটিয়া মোঃ আনোয়ার হোসেন, বেল্লাল খলিফা, মোঃ মহসিন মিলনসহ আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা ও কুয়াকাটা প্রেসক্লাবে কর্মরত গনমাধ্যমকর্মীরা।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত বেল্লাল মোল্লার ভাড়াটিয়া ঘর মালিক মোঃ আনোয়ার হোসেন, বেল্লাল খলিফা, মোঃ মহসিন মিলন বলেন, আমরা ঘর ভাড়া নিয়েছি বেল্লাল মোল্লার কাছ থেকে। সেখানে একটি পত্রিকায় মেয়রের কাছ থেকে ভাড়া নিয়েছি
বলে আমাদের সাক্ষাৎকার ছাপা হয়েছে। যা সত্য নয়। এ বিষয়ে আমাদের কোন সাংবাদিক বন্ধুর সাথে কথা হয়নি।
লতাচাপলী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও চেয়ারম্যান আনছার উদ্দিন মোল্লা বলেন, জাতীয় পার্টি সহ বিভিন্ন দল থেকে অনুপ্রবেশকারীদের নিয়ে কুয়াকাটা পৌর কাউন্সিলর মোঃ শাহ আলম হাওলাদার জমি দখল সহ সালিশী বানিজ্য করছে।
তিনি আরো বলেন, কাউন্সিলর শাহ আলম সরকারী জমি দখল করে মরিয়ম হোটেল নামে একটি আবাসিক হোটেল করেছে। এতে পৌর মেয়র বাধা দিলে তারা মেয়রের বিরুদ্ধে সাংবাদিকদের কাছে ভূল তথ্য দিয়ে নিউজ করিয়েছে। তারা মেয়রের
ভাবমুর্তি ক্ষুন্ন করার জন্য নানা ষড়যন্ত্র ও অপপ্রচারে লিপ্ত রয়েছে বলে লতাচাপলী ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আনছার উদ্দিন মোল্লা বলেন।

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর







ফেসবুক কর্নার

শিরোনাম
৯৯৯ নম্বরে ফোন করে ধর্ষণ থেকে রক্ষা পেল ভান্ডআগৈলঝাড়ায় কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণ। ৫ জনের বিরুদ্মনপুরা বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী যুবদলের ৪২তম প্ফ্রান্সে বিশ্ব নবী হযরত মুহম্মাদ (সাঃ) কে অবমাবরিশাল বিএনপির অন্তঃকোন্দলের ছায়া যুবদলেও ॥ রিফাত হত্যা মামলায় অপ্রাপ্তবয়স্ক ১১ আসামির সঝালকাঠিতে পুলিশের বাধায় যুবদলের প্রতিষ্ঠাববরিশালে নৌ পু‌লি‌শের ওপর হামলাজানুয়ারিতে ক্লাস শুরুর পরিকল্পনা৫ দিন ইন্টারনেটের গতি কিছুটা ধীর থাকতে পারেমা দুর্গার বিসর্জনে ছিল না শোভাযাত্রা-আনন্দ গলাচিপায় বেপজার রপ্তানী প্রক্রিয়জাত অঞ্চল ককরোনায় পর্যটকদের কাছে কুয়াকাটার আকর্ষণ একটুপটুয়াখালীতে র‌্যাংগস ইন্ডাস্ট্রিজের র‌্যাংজেলা পরিষদ সদস্য ফিরোজ শিকদার কলাপাড়ার দূর্
%d bloggers like this: