বরিশালে বাড়তি দামে মাস্ক বিক্রি, ৪ প্রতিষ্ঠানকে ৩৫ হাজার টাকা জরিমানা

  • আপডেট টাইম : মার্চ ১০ ২০২০, ১৯:৩২
  • 65 বার পঠিত
বরিশালে বাড়তি দামে মাস্ক বিক্রি, ৪ প্রতিষ্ঠানকে ৩৫ হাজার টাকা জরিমানা

দেশে তিনজন করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগীর তথ্য প্রকাশ পাওয়ার পর বরিশালেও কিছুটা আতঙ্ক ছড়িয়েছে প্রাণঘাতি এ ভাইরাস। রোগী শনাক্তের ঘোষণার পর থেকে বেড়েই চলছে মাস্কের দাম। আর এই সুযােগ কাজে লাগিয়ে আসাধু ব্যবসায়ীরা মাস্কের দাম বাড়িয়ে দিয়েছেন কয়েকগুণ। যদিও হাইকোর্টের কঠোর নির্দেশনা আছে এই ব্যাপারে। এরই ধারাবাহিকতায় বাড়তি মূল্যে মাস্ক বিক্রি করায় নগরীর ৪ ব্যবসা-প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলােকে মােট ৩৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। নগরীর ফলপট্টি ও মহাসিন মার্কেট, জেলা পরিষদ মার্কেটসহ বিভিন্ন এলাকায় জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জিয়াউর রহমানের নেতৃত্বে এই অভিযান পরিচালনা করা হয়।

জানা গেছে, বাংলাদেশে তিনজন করােনা আক্রান্তের খবরে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে বরিশালে। সচেতন নাগরিকরা সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে মাস্ক কেনার দিকে ঝুঁকে পড়েছেন। আর এই সুযােগে ৫ টাকা মূল্যের মাস্ক ৩০-৫০ টাকা পর্যন্ত বিক্রির অভিযােগ ওঠে রবিবার থেকেই। বিষয়টি নজরে আসার পর মাঠে নামে প্রশাসন, চালায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান।

অভিযানের অংশ হিসেবে আজ মঙ্গলবার মোবাইল কোর্ট নগরীর ফলপট্টি সড়কের ২টি দোকানে ৫ হাজার টাকা করে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। অপরদিকে একই মোবাইল কোর্ট নগরীর হাজী মহসিন মার্কেটের একটি দোকানে অভিযান চালিয়ে ২০ হাজার টাকা সহ চকবাজার রোডস্থ জেলা পরিষদ মার্কেটের একটি দোকানে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

এসময় বিভিন্ন ব্যবসায়ীদের সতর্ক করে দেওয়া হয় জনগণকে জিম্মি করে অতিরিক্ত মূল্যে মাস্ক বিক্রি করা থেকে বিরত থাকার বিষয়ে।
এসময় জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জিয়াউর রহমান বলেন, জনস্বার্থে করোনা ভাইরাজকে পুঁজি করে কেউ ব্যবসায় মেতে উঠলে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

জনস্বার্থে এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানাে হয়েছে।

এদিকে স্বাস্থ্য অধিদফতর বরিশাল বিভাগীয় কার্যালয় থেকে ছয় জেলায় পর্যবেক্ষণ বাড়ানো হয়েছে জানিয়ে সহকারী পরিচালক ডা. শ্যামল কৃষ্ণ মন্ডল বলেন, যারা আক্রান্ত হবেন এবং তাদের যারা সেবা দেবেন, সেসব ব্যক্তির জন্য মাস্ক প্রয়োজনীয়। এর বাইরে কারো পড়ার কোনো প্রয়োজন নেই। আবার হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহারের অভ্যাস থাকাটাও ভালো কিন্তু এর মানে এ নয় যে এ মুহূর্তেই মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ওপর ঝুঁকে পড়তে হবে।

এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমান জানান, করোনা রোধে স্বাস্থ্য বিভাগসহ জেলা ও উপজেলা প্রশাসন থেকে জনসচেতনতায় মাঠ পর্যায়ে কাজ শুরু হয়েছে।

এদিকে নগরীর সার্জিক্যাল দোকানগুলোতে মাস্কের সংকট দেখা দিয়েছে। অনেক দোকানে মাস্ক নেই বললেই চলে। নগরীর বগুড়া রোডের বরিশাল সার্জিক্যালের রতন চক্রবর্তী জানান, করোনা ভাইরাসের শুরু থেকেই মাস্কের ব্যবহার বেড়ে যায়। ইদানিং মাস্কের ব্যাপক চাহিদা দেখা দিয়েছে। ঢাকায় চাহিদাপত্র দিয়েও প্রয়োজনীয় সংখ্যক মাস্ক পাচ্ছেন না তারা। এ কারণে আপাতত মাস্ক নেই। বরিশালে ৮টি সার্জিক্যাল দোকান রয়েছে। এর কোনটিতেই মাস্ক নেই বলে জানান রতন চক্রবর্তী।

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর

হালিমা খাতুন স্কুলের ভর্তি বিজ্ঞপ্তি, বরিশাল







ফেসবুক কর্নার

শিরোনাম
জমজম কূপের প্রধান প্রকৌশলী আর নেইপুলিশ হেফাজতে বরিশালে শিক্ষানবিশ আইনজীবীর মজামিন পেলেন কার্টুনিস্ট কিশোররমজা‌নে‌ওে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলাশিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলছে ৩০ মার্চচলে গেলেন মিডিয়াঙ্গনের পরিচিত মুখ মুরাদ হোসেযুক্তরাষ্ট্রে আবারও চালু হল গ্রিন কার্ডএকসঙ্গে বিষপান করে প্রেমিকের মৃত্যু, প্রেমিকসংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রীবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোরের প্রতিবেদন মুছতে ব‌রউন্নীত হচ্ছে সরকারি কর্মচারীদের গ্রেড ও বেতননির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবি ৬ মেয়হিন্দু সেজে দুই বিয়ে করলো ইউসুফ, অতঃপর…১০ মাসে আত্মহত্যায় মৃত্যু ১১ হাজার, করোনায় ৫ হবরিশালে ইশরাকের সামনে বিএনপির দুই গ্রুপের চে
%d bloggers like this: