নিষেধাজ্ঞা না মেনে বাড়ি ফিরছেন হাজারো মানুষ, যানবাহন সংকট ও অতিরিক্ত ভাড়া আদায়

  • আপডেট টাইম : মার্চ ২৫ ২০২০, ১৫:৪৯
  • 41 বার পঠিত
নিষেধাজ্ঞা না মেনে বাড়ি ফিরছেন হাজারো মানুষ, যানবাহন সংকট ও অতিরিক্ত ভাড়া আদায়

শামীম আহমেদ॥ বরিশাল সহ দক্ষিাণাঞ্চলে কোভেল প্রানঘাতী ভাইরাস সংক্রমন কারনে সপ্তাহব্যপি ছুটি কাটাতে কর্মস্থলের স্থান ঢাকা ছেড়ে গ্রামের বাড়ীতে সময় কাটানোর আনন্দ পথে পথেই শেষ।

সিমাহীন দূর্ভোগ যানবাহন,দোকান পাঠ, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান সব কিছুই বন্ধ থাকার কারনে দূরদুরান্ত থেকে ছুটি আসা মানুষগুলো বরিশালের কেন্দ্রীয় নথুল্লাবাত বাস টারমিনাল এলাকায় গাড়ী থেমার পরই তাদের সেসকল যাত্রƒদের দূর্ভোগের ভিতর পড়েন।

আজ বুধবার (২৫ই) মার্চ বেলা ১১টার পর থেকেই বেশ কয়েকটি যাত্রীবাহী বাস মাওয়া থেকে কয়েকশত যাত্রী নিয়ে বরিশালে আসে।

যানবাহন নেই সবকিছুই বন্ধ এই অজুহাতে ২৭০ টাকারস্থলে প্রতিটি যাত্রীর কাছ থেকে ৫শত টাকা করে ভাড়[া আদায় করে নেয়ার অভিযোগ করেন ছুটিতে আসা যাত্রীরা।

এসময় ঢাকা থেকে আসা ভাওফলগামী যাত্রী আঃ রহিম,মিজানুর রহমান,মোঃ মিঠু সহ বেশ কয়েকজন বিএম পরিবহন তাদের কাছ থেকে ৫শত টাকা ভাড়া আদায় করে নিছে।

অপরদিকে নথুল্লাবাদ জিয়া সড়ক মোড় থেকে বেশ কয়েকটি মিনি ট্রাক ভাড়া করে নিজ গন্তব্যতে ছুটে যাওয়ার জন্য হুমড়ি খেয়ে পড়তে দেখা যায়।

এছাড়া নগরীর বিভিন্ন স্থানে দু’একটি ছোটখাট হোটেল খোলা থাকার পরও তাদের ছিল না খাবার যারফলে ছোটখাট প্রতিষ্ঠানের দিন মজুর কর্মচারীরা হাতে টাকা থাকার পরও পাচ্ছে না খাবার

অন্যদিকে নগরীর চকবাজার,কাটপট্রি, গ্রিজ্জামহল্লা,কাকলীমোড় সহ বিভিন্ন এলাকার সকল প্রর্যায়ের শপিংমল,বিপণি বিতান ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার কারনে মনে হচ্ছে এটা এটা মনে হয় কোন যুদ্ধবিধ্বস্থ এলাকা।

অপরদিকে বরিশাল বিভিন্ন এলাকার নিম্ন আয়ের অটোচালক,ভ্যানচালক ওরিক্সা চালক সহ সাধারন দির-মজুর শ্রমীক শ্রেনীর মাঝে খাবার সংকট থাকার কারনে তাদের পরিবারের সদস্যদের মধ্যে চরম ক্ষোভ প্রকাশ বিরাজ করছে।

শহরের রসুলপুর কলোনী,পলাশপুর,চড়েরবাড়ি এলাকার কয়েকশত সাধারন দিন ভিত্তিক আয় করে থাকে দেখা সেসকল পরিবারের সদস্য এবেলা খেতে পারলে অপরবেলা তাদের খাবার থকিবে কিনা তা নিয়ে রয়েছে সন্দ্রেহ।

পাশাপাশি জেলা প্রশাসকের ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্টেটের গাড়ী বিভিন্ন স্থানে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে অভিযান অব্যাহত রেখেছে।
এদিকে বেলা সাড়ে ১২টার দিকে বেশ কয়েকটি সেনাবাহিনীর লড়ি নথুল্লাবাত দিয়ে শহরে প্রবেশ করতে দেখা গেলেও শহরের এখনো তারা টহল শুরু করেনি।

দিনব্যাপি নগরীর বিভিন্নস্থানে তথ্য সংগ্রহের সময়ে বিভিন্নস্থানের ব্যবসায়ীরা বলেন একই ব্যবসা-বানিজ্য বন্ধ করে বাসায় থাকলেতো চলবে না। দোকান পাঠের কি অবস্থা তার খোঁজ নিতেতো বাসা থেকে বেড় হতে হচ্ছে।
এদিকে কয়েক পূর্ব থেকে নগরীর কাটপট্রি রোডের আশ্রাব জুয়েলার্সে দিনের বেলায় তালা কেটে শতভড়ি সোনা লুঠ সহ আরো কয়েকটি দোকান চুরি হবার ঘটনা ঘটেছে তারা চাচ্ছেন প্রতিটি এলাকায় পুলিশের টহল জোড়দার করার জন্য আহবান জানান প্রশাসনের প্রতি।

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর







ফেসবুক কর্নার

শিরোনাম
ঝালকাঠির নলছিটিতে রাস্তার ঢালে সবজি চাষের ওপপটুয়াখালীতে ছাত্র ও যুব পরিষদের মানববন্ধন ও ছালাহউদ্দিন সভাপতি, আবদুল্লাহ জুয়েল সম্পাদক অবশেষে বরখাস্ত হলেন আগৈলঝাড়ার সেই শিক্ষকভাণ্ডারিয়ায় খালে মাথাবিহীন যুবকের লাশআল্লামা শফিকে নিয়ে কটুক্তির প্রতিবাদে দৌলতখঝালকাঠির পুলিশ কর্মকর্তা এমএম মাহমুদ হাসানকমৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম এবরিশাল রেঞ্জের শ্রেষ্ঠ পুলিশ সুপার ফাতিহা ইয়বরিশালে ঢাবি সাবেক ভিপি নুরের বিরুদ্ধে মিথ্যনুরের বিরুদ্ধে আরেকটি মামলা২৫ শতাংশ প্রাথমিক বিদ্যালয় খুলে দেয়ার প্রস্তমৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রীর মায়ের মৃত্যুবরিশাল নগরীর মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তারদল থেকে বহিস্কার হচ্ছেন শারমিন মৌসুমি কেকা
%d bloggers like this: