কুয়াকাটায় ভিজিএফ’র চাল বিতরণ নিয়ে গুজব ছড়ানোর অভিযোগ

  • আপডেট টাইম : এপ্রিল ০৮ ২০২০, ০০:৫৭
  • 33 বার পঠিত
কুয়াকাটায় ভিজিএফ’র চাল বিতরণ নিয়ে গুজব ছড়ানোর অভিযোগ

 

আনোয়ার হোসেন আনু,কুয়াকাটা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি॥ পটুয়াখালীর কুয়াকাটায় ভিজিএফ’র চাল বিতরনে অনিয়ম ও ৪২ জেলের চাল উধাও  এমন অভিযোগের সত্যতা মেলেনি তদন্ত টিমের তদন্তে। অবশেষে চাল নিয়ে জটিলতার অবসান হলো। মঙ্গলবার সকালে পৌর মেয়র, তদারকি কর্মকর্তা, কাউন্সিলর ও সাংবাদিকদের উপস্থিতিতে  ২২ জেলের মাঝে চাল বিতরণ করা হয়। এরই মাধ্যমে কুয়াকাটা পৌর এলাকার বাসিন্দা ৫৩০ জেলে স্বচ্ছ ভাবে চাল পেল।

চাল বিতরণে অনিয়মের অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে দাবী করেছেন কুয়াকাটা পৌর মেয়র সহ পৌর কাউন্সিলর বৃন্দ। করোনা ভাইরাসের দেশব্যাপী যখন সংকটময় সময় পার করছেন। তখন একটি মহল রাজনৈতিক ভাবে ছোট করতে চাল উধাও এবং অনিয়মের মিথ্যা গুজব প্রচার করেছে। পৌরসভা ও পৌর কাউন্সিলরদের সুনাম ক্ষুন্য করতেই এমন অপপ্রচার চালানো হয়েছে বলে দাবী করেছে পৌর কর্তৃপক্ষ।

জানা যায়, সরকারের বিশেষ খাদ্য সহায়তা ভিজিএফ এর চাল ৫’শ ৩০ জেলের মাঝে স্বচ্ছ প্রক্রিয়ায় সোমবার চাল বিতরণ করা হয়েছে। সোমবার বিকেলে এবং মঙ্গলবার সকালে দু’দফায় কুয়াকাটার পৌর শহরের এসব বাসিন্দা জেলেদের মাঝে এ চাল বিতরন করা হয়েছে। বিতরনের সংশ্লিস্ট তদারকি কর্মকর্তা কলাপাড়া উপজেলা দারিদ্র বিমোচন অফিসার সৈয়দ খালিদ আহম্মেদ’র উপস্থিতিতে জেলে প্রতি ৮০ কেজি করে ৯টি ওয়ার্ডের বাসিন্দা জেলেদের মধ্যে এ চাল বিতরণ করা হয়েছে। সোমবার বিকেলে জেলা প্রশাসন,বিভিন্ন দপ্তর ও সাংবাদিকদের কাছে  ৪২ জেলের চাল উধাও হয়ে গেছে এমন অভিযোগ করা হয়। অভিযোগের ভিত্তিতে উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা সহ একটি তদন্ত টিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন ও তদন্ত করেন। এসময় তারা চাল বিতরনে কোন অনিয়মের প্রমান পায়নি। চাল না পাওয়া এমন ২২ জেলের সরকারী  বস্তায় চাল গোডাউনে মজুদ রয়েছে বলে তদন্ত শেষে জানান তারা। ৪২ জেলের চাল উধাও হয়েছে এমন অভিযোগের সত্যতা পায়নি তদন্ত টিম। মঙ্গলবার সকালে মজুদ রাখা ঐ ২২ জেলের মাঝে চাল বিতরণ দেয়া হয়েছে।

কুয়াকাটা পৌর মেয়র আ. বারেক মোল্লাসহ পৌর প্যানেল মেয়র পান্না হাওলাদার, কাউন্সিলর তোফায়েল আহম্মেদ তপু, আবুল হোসেন ফরাজী, তৈয়বুর রহমান, হাবিবুর রহমান সহ সংশ্লিস্ট সকল ওয়াডর্’র কাউন্সিলরা ভিজিএফ’র চাল বিতরণে কোন ধরনের অনিয়ম হয়নি বলে তদন্ত কর্মকর্তাদের জানান। চাল উধাও এর ঘটনা সত্য নয়, এটি একটি গুজব বলেও জানান তারা।

 

চাল বিতরণের তদারকি কর্মকর্তা কলাপাড়া উপজেলা পল্লী দারিদ্র্য বিমোচন কর্মকর্তা সৈয়দ খালিদ আহম্মেদ বলেন,স্বচ্ছ ভাবেই চাল বিতরণ করা হয়েছে। চাল উধাও অথবা কোন অনিয়ম হয়নি। তার উপস্থিতিতেই সোমবার ও মঙ্গলবার সকালে দুই দফায় ৫৩০ জেলের মাঝে ৮০ কেজি করে এ চাল বিতরণ করা হয়।

কুয়াকাটা পৌর মেয়র আ. বারেক মোল্লা বলেন, চাল উধাও  এবং অনিয়মের যে অভিযোগ উঠেছে তা সঠিক নয়।একটি মহল পৌরসভা এবং পৌর কাউন্সিলরদের সুনাম ক্ষুন্য করার জন্য অপপ্রচার চালিয়েছে।  প্রকৃত পক্ষ্যে কুয়াকাটা পৌর এলাকায় কার্ডধারী প্রায় দেড় হাজার জেলে রয়েছে। এদের মধ্য থেকে বাছাই করে ৫’শ ৩০ জন দুস্থ: ও অসহায় জেলের মাঝে ৮০ কেজি  করে ভিজিএফ’র চাল বিতরণ করা হয়েছে। করোনার প্রার্দুভাব দুরীকরনে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে এসব চাল বিতরন করতে গিয়ে প্রথম দিনে ৫০৮ জন জেলে এবং দ্বিতীয় দিনে ২২ জেলের মাঝে চাল বিতরন করা হয়েছে। তিনি আরো বলেন, কার্ডধারী ছাড়াও অনেক জেলে রয়েছে। এসব জেলেদের নতুন করে ভিজিএফ’র আওতায় নিয়ে আসার জন্য সংশ্লিষ্ঠ কর্তৃপক্ষের এখনই জরুরী উদ্যোগ নেয়া উচিত।

 

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর







ফেসবুক কর্নার

শিরোনাম
ঝালকাঠির নলছিটিতে রাস্তার ঢালে সবজি চাষের ওপপটুয়াখালীতে ছাত্র ও যুব পরিষদের মানববন্ধন ও ছালাহউদ্দিন সভাপতি, আবদুল্লাহ জুয়েল সম্পাদক অবশেষে বরখাস্ত হলেন আগৈলঝাড়ার সেই শিক্ষকভাণ্ডারিয়ায় খালে মাথাবিহীন যুবকের লাশআল্লামা শফিকে নিয়ে কটুক্তির প্রতিবাদে দৌলতখঝালকাঠির পুলিশ কর্মকর্তা এমএম মাহমুদ হাসানকমৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম এবরিশাল রেঞ্জের শ্রেষ্ঠ পুলিশ সুপার ফাতিহা ইয়বরিশালে ঢাবি সাবেক ভিপি নুরের বিরুদ্ধে মিথ্যনুরের বিরুদ্ধে আরেকটি মামলা২৫ শতাংশ প্রাথমিক বিদ্যালয় খুলে দেয়ার প্রস্তমৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রীর মায়ের মৃত্যুবরিশাল নগরীর মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তারদল থেকে বহিস্কার হচ্ছেন শারমিন মৌসুমি কেকা
%d bloggers like this: