বানারীপাড়ায় করোনা ভাইরাস শনাক্ত, ১৬ ঘর লকডাউন ১১ জনের নমুনা সংগ্রহ

  • আপডেট টাইম : এপ্রিল ২২ ২০২০, ১৯:২০
  • 534 বার পঠিত
বানারীপাড়ায় করোনা ভাইরাস শনাক্ত, ১৬ ঘর লকডাউন ১১ জনের নমুনা সংগ্রহ

মো. সুজন মোল্লা, বানারীপাড়া (বরিশাল)।।
নভেল-১৯ প্রথম শনাক্ত হয়েছে বরিশালের বানারীপাড়া উপজেলায়। এর পরপরই শনাক্ত
হওয়া বাড়ির ১৫টি ও দ্বিতীয় ধাপে যে পল্লী চিকিৎসক ওই রোগীকে সেবা দিয়েছিলেন তার বাড়িও লকডাউন করা হয়েছে। এনিয়ে মোট ১৬টি বাড়ি লকডাউনের আওতায় থাকবে বলে জানা গেছে।

উপজেলার উদয়কাঠি ইউনিয়নের তেতলা-মধুরভিটা গ্রামে মা ও মেয়ের প্রাণঘাতি করোনাভাইরাস শনাক্তের পরেই প্রশাসন তড়িৎ এ ব্যবস্থা করেণ। এছাড়া বুধবার করোনা আক্রান্ত ওই
পরিবারের ১১ জন সদস্যের নমুনা সংগ্রহ করে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালেপাঠানো হয়েছে বলেও বানারীপাড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসূত্রে জানা গেছে।

মঙ্গলবার বিকালে করোনাআক্রান্ত মা-মেয়েকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে পাঠানোর পাশাপাশি তাদের বাড়ির ১৫টি ঘর ও পল্লী চিকিৎসক মনির হোসেনের ঘর লকডাউন করা হয়েছে। করোনা আক্রান্ত ওই
মেয়ে স্বরূপকাঠি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডা. কিবরিয়ার কাছ থেকে প্রথমে চিকিৎসা নিয়ে স্থানীয় শেরে বাংলা বাজারে ওই পল্লী চিৎিসকের
মাধ্যমে ইনজেকশন নিয়েছিলো। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডা. গোপাল শীল জানান করোনা আক্রান্ত ওই পরিবারের ১১ সদস্যের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। কীট না থাকায় ওই পল্লী চিকিৎসকের নমুনা সংগ্রহ করা সম্ভব হয়নি তবে দু’একদিনের মধ্যে করা হবে।

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর

হালিমা খাতুন স্কুলের ভর্তি বিজ্ঞপ্তি, বরিশাল







ফেসবুক কর্নার

শিরোনাম
রাসেল বেঁচে থাকলে সেনাবাহিনীর বড় অফিসার হতো শেখ রাসেলের জন্মদিন আজহচ্ছে না পিইসি ও ইবতেদায়ি পরীক্ষালালমোহনে কুকুরের কামড়ে এক সপ্তাহে ১৫ জন হাসপ‘রাসেল বেঁচে থাকলে একজন মহানুভব, দূরদর্শী ও আএবার সম্প্রচারে ফিরলো স্টার জলসাওখাদ্য উৎপাদন বাড়াতে গবেষণায় গুরুত্বারোপ প্রগণতন্ত্রকে উদ্ধারের জন্য সকলকে ঐক্যবন্ধ হয়ে বরিশালের ভাটারখালে দু’গ্রুপের সংঘর্ষ ॥ নারীবরিশালে কোরআন অবমাননা করে ফেসবুকে আপত্তিকর কক্লিন ফিড শর্ত মেনে বাংলাদেশে ফিরলো জি বাংলারান্নার এলপিজি একলাফে বাড়ল ২২৬টাকাদক্ষিণাঞ্চলে আরেকটি পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দশিশুকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে ছাত্রলীগ নেতার ১৬ ঘণ্টা পর পটুয়াখালীর অপহৃত স্বেচ্ছাসেবক লী
%d bloggers like this: