কুয়াকাটায় কৃষকের ফোনে ধান কাটতে সহযোগিতা করলেন ছাত্রলীগ

  • আপডেট টাইম : এপ্রিল ২৪ ২০২০, ২১:৩৭
  • 67 বার পঠিত
কুয়াকাটায় কৃষকের ফোনে ধান কাটতে সহযোগিতা করলেন ছাত্রলীগ

কুয়াকাটা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি॥ করোনা সংক্রমণে শ্রমিক সংকটে এক গরীব কৃষকের ফোন পেয়ে ধান কাটতে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিলেন মহিপুর থানা ও কুয়াকাটা পৌর ছাত্রলীগের নেতাকর্মিরা। ২৪ এপ্রিল (শুক্রবার) সকালে ছাত্রলীগের নেতাকর্মিরা নবীনপুর গ্রামের কৃষক মো. সেলিম হাওলাদারের ক্ষেতের ধান কেটে মাথায় করে ঘরে তুলে দিলেন । মহিপুর থানা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. সোয়াইব খান ও সাধারণ সম্পাদক সাইদুর রহমান সবুজ ভূইয়া, পৌর ছাত্রলীগ নেতা ও কুয়াকাটা
জয়বাংলা ক্লাবের সভাপতি রাইসুল ইসলাম শিবলু, তুহিন দেওয়ান,বাইজিদ সহ অর্ধশতাধিক নেতাকর্মিরা এ ধান কাটা কার্যক্রমে অংশগ্রহন করে।

লকডাউনে ঘরে থাকা ছাত্রলীগের নেতাকর্মিরা জানান, করোনা সংক্রমনের কারনে লেখাপড়ায় মন বসছিল না। অলস সময় কাটছিল তাদের। তাই তারা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আহবানে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় এবং সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য এর নির্দেশনায় করোনার প্রার্দুভাবে বিপদগ্রস্থ্য কৃষক,কর্মহীন,দূস্থ্য ও নিন্ম আয়ের মানুষের পাশে এসে দাড়ালো কুয়াকাটা পৌর ও মহিপুর থানা ছাত্রলীগ। ছাত্রলীগের নেতাকর্মিরা জানান, করোনা মুহুর্তে অসহায় কৃষক,কর্মহীন মানুষদের পাশে দাড়াতে পেরে তাদের খুবই ভালো লাগছে। মাঠে গিয়ে কৃষকদের ক্ষেতের পাঁকা ধান কেটে মাথায় করে বাড়ি পৌছে দেয়া। এতে তাদের নতুন অভিক্ষতা সঞ্চয় হয়েছে। লেখাপড়ার পাশাপাশি ক্ষেত খামারে কাজ করা, মানুষের পাশে থেকে দূঃখের সময় সহযোগিতার মধ্যে অন্যরকম এক অনুভূতি কাজ করে। লেখাপড়ার ক্ষেতে এ জ্ঞান তাদের
অনেকটাই এগিয়ে রাখবে ছাত্রলীগকে বলে তারা মনে করে।

কৃষক মো. সেলিম হাওলাদার বলেন, করোনা সংক্রমনে ধানকাটা শ্রমিক সংকট ভূগছিলেন তিনি। ভাগে ধানকাটা শ্রমিকদের মজুরীর ধান দিয়ে এবং কৃষি কাজের খরচ বাদ দিয়ে তার (কৃষকের) অবশিষ্ট কিছুই থাকে না। হাতে কোন টাকা ছিল না। ধান বিক্রি করে শ্রমিকদের মজুরী দেয়া লাগতে। এমন সংকট মুহুর্তে ছাত্রলীগ আমার পাশে দাড়ানোয় তিনি অনেক লাভবান হয়েছে। কৃষক সেলিম কুয়াকাটা পৌর ছাত্রলীগ ও মহিপুর থানা ছাত্রলীগের নেতাকর্মিদের প্রতি তিনি কৃতক্ষতা প্রকাশ করে।

জয়বাংলা ক্লাবের সভাপতি রাইসুল ইসলাম শিবলু বলেন, করেনা সংক্রমণে বিপদগ্রস্থ কৃষক,কর্মহীন ও অসহায়দের জন্য হেল্পলাইন খোলা হয়েছে। হেল্পলাইনে যোগাযোগ করলে শ্রমিক সংকটে থাকা কৃষকের ধান কেটে দেয়া, কর্মহীন নিন্ম আয়ের অসহায় পরিবার খাদ্য সংকটের সমাধান করবে কুয়াকাটা পৌর ও মহিপুর থানা ছাত্রলীগ।

শিবলু আরো বলেন, করোনাভাইরাসের প্রার্দুভাব থেকে দেশ যতদিন মুক্ত না হয়, ততদিন ছাত্রলীগ এসব মানুষের পাশে থেকে কাজ করবে। পৌর ছাত্রলীগ নেতা তুহিন দেওয়ান বলেন, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নির্দেশনায় কুয়াকাটা পৌর ও মহিপুর থানা ছাত্রলীগ যৌথভাবে কৃষক সহ কর্মহীন, অসহায়, নিন্ম আয়ের মানুষদের সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে। ধানকাটা,সবজ্বি বিতরণসহ বিভিন্ন সামাজিক কার্যক্রমে অংশ নিচ্ছে ছাত্রলীগ। করোনা সংকটে ছাত্রলীগের দেখাদেখি অন্যান্য সংগঠন সহ বিত্তবানরাও বিপদগ্রস্থ এসব মানুষের সহযোগিতায় এগিয়ে আসবে মনে করে ছাত্রলীগ নেতা তুহিন।

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর







ফেসবুক কর্নার

শিরোনাম
ঝালকাঠির নলছিটিতে রাস্তার ঢালে সবজি চাষের ওপপটুয়াখালীতে ছাত্র ও যুব পরিষদের মানববন্ধন ও ছালাহউদ্দিন সভাপতি, আবদুল্লাহ জুয়েল সম্পাদক অবশেষে বরখাস্ত হলেন আগৈলঝাড়ার সেই শিক্ষকভাণ্ডারিয়ায় খালে মাথাবিহীন যুবকের লাশআল্লামা শফিকে নিয়ে কটুক্তির প্রতিবাদে দৌলতখঝালকাঠির পুলিশ কর্মকর্তা এমএম মাহমুদ হাসানকমৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম এবরিশাল রেঞ্জের শ্রেষ্ঠ পুলিশ সুপার ফাতিহা ইয়বরিশালে ঢাবি সাবেক ভিপি নুরের বিরুদ্ধে মিথ্যনুরের বিরুদ্ধে আরেকটি মামলা২৫ শতাংশ প্রাথমিক বিদ্যালয় খুলে দেয়ার প্রস্তমৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রীর মায়ের মৃত্যুবরিশাল নগরীর মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তারদল থেকে বহিস্কার হচ্ছেন শারমিন মৌসুমি কেকা
%d bloggers like this: