ক‌রোনা আত‌ঙ্কে ভোলায় হিন্দু যুব‌কের ইসলাম ধর্ম গ্রহন

  • আপডেট টাইম : মার্চ ৩১ ২০২০, ১০:১৫
  • 121 বার পঠিত
ক‌রোনা আত‌ঙ্কে ভোলায় হিন্দু যুব‌কের ইসলাম ধর্ম গ্রহন

ভোলা সদর উপজেলার ৭ নং শিবপুর উইনিয়নে করোনা আতঙ্কে হিন্দু ধর্মকে ত্যাগ করে মুসলমান ধর্ম গ্রহন করেন এক যুবক। বুধবার (২৫ মার্চ) শিবপুর শান্তির হাট জামে মসজিদের ইমাম মোঃ সাখাওয়াতুল্লার কাছে বিকাল সাড়ে ৫ টায় এক যুবক এসে বলে আমি ইসলাম ধর্ম গ্রহন করতে চাই।

ইমাম সাহেব তখন যুবকে নানা প্রশ্ন করেন। তার পরিবার পরিজনের কথাও বলেন। ওই যুবক একটা কথাই বলে আমি কারো পরোয়া করিনা আমি ইসলাম ধর্ম গ্রহন করতে চাই। পরে ইমাম সাহেব ইসলামিক শরিয়া মোতাবেক বিকাল ৬ টায় দিকে তাকে ইসলাম ধর্ম গ্রহন করায়। তখন সেখানে এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিরা সহ মসজিদের মুসিল্লিরা উপস্থিত ছি‌লেন।

যুবকের নাম হৃদয় চন্দ্র দাস (২০) শিবপুর ৪ নং ওয়ার্ডের দুর্গা চরন ডাঃ বাড়ির যুদিষ্টি চন্দ্র দাসের ছেলে হৃদয়। হৃদয়ের বর্তমান নাম দেয়া হয় মোঃ আবদুল্লাহ। হৃদয়ের শান্তিরহাট বাজারে সেলুনের দোকান আছে বলে জানা যায়।

হৃদয় কাছে হঠাৎ মুসলমান হওয়ার বিষয়টি জানতে চাইলে বলেনআমি সজ্ঞানে নিজ ইচ্ছায় ইসলাম ধর্ম গ্রহন করি। ইসলাম ধর্মটাকে আমি অনেক আগ থেকেই অনুসরন করতাম। হৃদয় আরো বলেণ, সারা বিশ্বব্যপি যে মহামারি করোনা শুরু হয়েছে এই মহামারি থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য আল্লাহর উপর ভরসা করে চীনে হাজারো বিধর্মী ইসলমান ধর্ম গ্রহন করে। চীনের বিধর্মীরা ইসলাম ধর্ম গ্রহন করায় ইসলাম ধর্মের প্রতি আমার আরো আস্তা চলে আসে।

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর

হালিমা খাতুন স্কুলের ভর্তি বিজ্ঞপ্তি, বরিশাল







ফেসবুক কর্নার

শিরোনাম
সততার পুরুস্কার পে‌লেন ব‌রিশাল জেলা শিক্ষা অরাসেল বেঁচে থাকলে সেনাবাহিনীর বড় অফিসার হতো শেখ রাসেলের জন্মদিন আজহচ্ছে না পিইসি ও ইবতেদায়ি পরীক্ষালালমোহনে কুকুরের কামড়ে এক সপ্তাহে ১৫ জন হাসপ‘রাসেল বেঁচে থাকলে একজন মহানুভব, দূরদর্শী ও আএবার সম্প্রচারে ফিরলো স্টার জলসাওখাদ্য উৎপাদন বাড়াতে গবেষণায় গুরুত্বারোপ প্রগণতন্ত্রকে উদ্ধারের জন্য সকলকে ঐক্যবন্ধ হয়ে বরিশালের ভাটারখালে দু’গ্রুপের সংঘর্ষ ॥ নারীবরিশালে কোরআন অবমাননা করে ফেসবুকে আপত্তিকর কক্লিন ফিড শর্ত মেনে বাংলাদেশে ফিরলো জি বাংলারান্নার এলপিজি একলাফে বাড়ল ২২৬টাকাদক্ষিণাঞ্চলে আরেকটি পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দশিশুকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে ছাত্রলীগ নেতার
%d bloggers like this: